2017/08/22

আপডেইট হয়েছে :  

স্বরণিকা

সর্বশেষ বিষয়

আমাদের তরফ হতে সহযোগিতা

ইউপি নির্বাচনের চতুর্থ ধাপেও আ. লীগের বিপুল বিজয়, নিহত ৮

ব্যাপক সহিংসতা, ভোট বর্জন এবং কারচুপির মধ্যে অনুষ্ঠিত চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনেও বিপুল জয় পেয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। এ ধাপে শনিবার দেশের ৪৬ জেলার ৮৮টি উপজেলার ৭০৩টি ইউনিয়ন পরিষদে ভোট গ্রহণ হয়। এখন পর্যন্ত ৬৮৯টি ইউনিয়নের বেসরকারি ফল পাওয়া গেছে। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ ৪৫১টি, বিএনপি ৭৩টি, জাতীয় পার্টি ৩ এবং স্বতন্ত্র ও অন্যরা ১৬২টিতে জয়ী হয়েছে। ৩৪ ইউপিতে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীরা বিনা ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। এ দফায় ১০৯টি ইউপিতে বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থী ছিল না। ভোটে জালিয়াতি ও অনিয়মের কারণে অন্তত ৫১টি কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন। তবে মোট কয়টি ইউনিয়নের ফল স্থগিত হবে, তা নিশ্চিত করতে পারেনি ইসি।

 

শনিবার সকাল ৮টায় শুরু হয়ে বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলা এ নির্বাচনে দেশের বিভিন্ন স্থানে ভোট জালিয়াতি, কেন্দ্র দখল, সংঘর্ষ-সহিংসতায় প্রাণহানি এবং প্রতিপক্ষের ভোট বর্জনের ঘটনা ঘটে। নির্বাচনি সহিংসতায় কুমিল্লা, নরসিংদী ও রাজশাহীতে অন্তত ৬ জন নিহত হয়েছেন। এর আগে ২২ মার্চ অনুষ্ঠিত প্রথম ধাপ, ৩১ মার্চ দ্বিতীয় ধাপ ও ২৩ এপ্রিল তৃতীয় ধাপের নির্বাচনেও আওয়ামী লীগ বিপুলভাবে জয়লাভ করেছিল।

 

চতুর্থ দফা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে শনিবার সহিংসতায় রাজশাহী, গাইবান্ধা, ঠাকুরগাঁও, কুমিল্লা ও নরসিংদীতে ছয়জন নিহত হয়। আহত হয় দেড়শতাধিক। আহতদের মধ্যে গাইবান্ধা ও ঠাকুরগাঁওয়ে আরো দুজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে চার দফার নির্বাচনে ৮০ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। নিহতদের অর্ধেকের বেশি আওয়ামী লীগের কর্মী।

 

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ দাবি করেছেন, চতুর্থ ধাপের নির্বাচনে কয়েকটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটেছে। কিছু সংঘর্ষ, হতাহতের ঘটনা ছাড়া সুশৃঙ্খল নির্বাচন হয়েছে। আশা করছি, সামনের দুই ধাপে কোনো গোলযোগ ছাড়াই সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হবে।

 

এর আগে গত ২২ মার্চ অনুষ্ঠিত প্রথম ধাপের ৭১২ ইউপির মধ্যে আওয়ামী লীগ ৫৪০টিতে জয়ী হয়। এরপর দ্বিতীয় ধাপে গত ৩১ মার্চ অনুষ্ঠিত ৫৮৪টি ইউপির মধ্যে আওয়ামী লীগ জিতেছে ৪০৫টিতে। বিএনপি প্রথম ধাপে ৪৭টিতে জয় পায়। দ্বিতীয় ধাপে জিতেছে ৫৮টিতে। প্রথম দুই ধাপে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা জয়ী হয়েছেন দুই শতাধিক ইউপিতে।

 

তৃতীয় ধাপে গত ২৩ এপ্রিল অনুষ্ঠিত ৬১৪টি ইউপি নির্বাচনের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ অন্তত ৩৮৪টি, বিএনপি ৬০টি ও অন্যরা ১৪৭টিতে জয়ী হয়েছে।

 

পঞ্চম পর্বে ২৮ মে ৭১৪ ইউপিতে এবং ষষ্ঠ ও শেষ পর্বে ৪ জুন ভোট হবে বাকি ইউনিয়ন পরিষদগুলোতে।#

 

আশরাফুর রহমান/৮

 

 

 

 

sharethis ইউপি নির্বাচনের চতুর্থ ধাপেও আ. লীগের বিপুল বিজয়, নিহত ৮

ارسال یک پاسخ

ایمیل شما منتشر نمی شود.
আবশ্যকীয় বিষয়গুলো * চিহৃ দ্বারা নির্দিষ্ট করা হয়েছ।.

*


− 2 = هفت

আমাদেরসাথেযোগাযোগ| RSS | সাইটেরভূমিকা

এইসাইটেরসর্বস্বত্ব ‘ইসলাম১৪’ এরজন্যসংরক্ষিত; তবেরিফারেন্সসহকোনকিছুবর্ণনাকরতেপারেন।